ঢাকা ০৩:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশি বংশদ্ভূত লন্ডনের এমপি আফসানা বেগমকে নির্দোষ ঘোষণা করেছেন আদালত

অনলাইন ডেস্কঃ লন্ডনের লেবার দলীয় এমপি বাংলাদেশি বংশদ্ভূত মেয়ে আফসানা বেগম হউজিং জালিয়াতির অভিযোগ থেকে খালাস পাওয়ার পর আদালতে তিনি কেঁদেছেন। লন্ডনের পপলার এন্ড লাইমহাউস সংসদীয় এলাকার এমপি আপসানা বেগমকে আদালতের জুরি বোর্ড নির্দোষ ঘোষণা করার সাথে সাথে তিনি আদালতের কাঠগড়ায় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। আজ শুক্রবার আদালত এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর স্নেয়ার্সব্রুক ক্রাউন কোর্টের দর্শক গ্যালারিতে বসে থাকা দর্শকের একাংশ করতালি দিয়ে রায়কে স্বাগত জানান। এসময় বিচারক মিসেস হুইপল খুব দ্রুত আদালতে নীরবতা বজায় রাখতে নির্দেশ দেন।

কাউন্সিলে হউজিংয়ের আবেদনের সাথে সম্পর্কিত তথ্য কাউন্সিলের যথাযথ কর্তৃপক্ষকে সঠিক সময়ে জানাতে ব্যর্থতার তিনটি অভিযোগে লন্ডনের স্নেয়ার্সব্রুক ক্রাউন কোর্টে চলতি সপ্তাহে বিচারের মুখোমুখি হন ৩১ বছর বয়সী অপসানা বেগম। ২০১৩ সালের জানুয়ারী থেকে ২০১৬ সালের মার্চ পর্যন্ত সময়ের মধ্যে তিন মেয়াদের হউজিং বিষয়ক তথ্য গোপন রাখার অভিযোগ করা হয় ব্রিটিশ-বাংলাদেশি এই এমপি’র বিরুদ্ধে।
মামলার বাদী ছিল টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল। কর্তৃপক্ষের অভিযোগ ছিল, আপসানা বেগমকে সেই সময়ে ঘরের ব্যবস্থা করতে গিয়ে হউজিংয়ের তালিকায় থাকা অন্য আবেদনকারীকে বিকল্প স্থানে আবাসনের ব্যবস্থা করতে হয়েছিল। এই কাজে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের ৬৩,৯২৮ পাউন্ড ব্যয় হয়েছিল।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

বাংলাদেশি বংশদ্ভূত লন্ডনের এমপি আফসানা বেগমকে নির্দোষ ঘোষণা করেছেন আদালত

আপডেট সময় ১০:৫৫:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১

অনলাইন ডেস্কঃ লন্ডনের লেবার দলীয় এমপি বাংলাদেশি বংশদ্ভূত মেয়ে আফসানা বেগম হউজিং জালিয়াতির অভিযোগ থেকে খালাস পাওয়ার পর আদালতে তিনি কেঁদেছেন। লন্ডনের পপলার এন্ড লাইমহাউস সংসদীয় এলাকার এমপি আপসানা বেগমকে আদালতের জুরি বোর্ড নির্দোষ ঘোষণা করার সাথে সাথে তিনি আদালতের কাঠগড়ায় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। আজ শুক্রবার আদালত এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর স্নেয়ার্সব্রুক ক্রাউন কোর্টের দর্শক গ্যালারিতে বসে থাকা দর্শকের একাংশ করতালি দিয়ে রায়কে স্বাগত জানান। এসময় বিচারক মিসেস হুইপল খুব দ্রুত আদালতে নীরবতা বজায় রাখতে নির্দেশ দেন।

কাউন্সিলে হউজিংয়ের আবেদনের সাথে সম্পর্কিত তথ্য কাউন্সিলের যথাযথ কর্তৃপক্ষকে সঠিক সময়ে জানাতে ব্যর্থতার তিনটি অভিযোগে লন্ডনের স্নেয়ার্সব্রুক ক্রাউন কোর্টে চলতি সপ্তাহে বিচারের মুখোমুখি হন ৩১ বছর বয়সী অপসানা বেগম। ২০১৩ সালের জানুয়ারী থেকে ২০১৬ সালের মার্চ পর্যন্ত সময়ের মধ্যে তিন মেয়াদের হউজিং বিষয়ক তথ্য গোপন রাখার অভিযোগ করা হয় ব্রিটিশ-বাংলাদেশি এই এমপি’র বিরুদ্ধে।
মামলার বাদী ছিল টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল। কর্তৃপক্ষের অভিযোগ ছিল, আপসানা বেগমকে সেই সময়ে ঘরের ব্যবস্থা করতে গিয়ে হউজিংয়ের তালিকায় থাকা অন্য আবেদনকারীকে বিকল্প স্থানে আবাসনের ব্যবস্থা করতে হয়েছিল। এই কাজে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের ৬৩,৯২৮ পাউন্ড ব্যয় হয়েছিল।