ঢাকা ০২:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় দুটি পেট্রোল বোমা ও ৩টি ককটেল নিস্ক্রিয় করেছে বোম বিশেষজ্ঞ ইউনিট

গাইবান্ধা সংবাদদাতাঃ গাইবান্ধা জেলার সাদুল্ল্যাপুর উপজেলা শহরের একটি বাসার গেট থেকে থানা পুলিশ কতৃক উদ্ধারকৃত পরিত্যক্ত অবস্থায় পলিথিনে মোড়ানো ২টি পেট্রোল বোমা ও ৩টি ককটেল সাদৃশ্য বস্তু বোমা নিস্কিয় করেছে র‌্যাব ১৩ এর বোম ডিস্পোজল ইউনিট। আজ ২৫ জুলাই রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পোস্ট অফিস সংলগ্ন সাবেক বিজিবি’র সদস্য নুরুল আমিনের বাসার গেট থেকে এসব পেট্রোল বোমা ও ককটেল সাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার করে। এরপর এ দিন বিকালে নলডাঙ্গা ব্রীজের নিকট নিয়ে বোম গুলো নিস্কিয় করা হয়।এসময় র‌্যাব ১৩ গাইবান্ধা টিমসহ সাদুল্লাপুর থানা পুলিশের কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদ রানা জানান, বোতল দুটিতে পেট্রোল ছিলো না। তবে বোতলের মুখ পর্যন্ত লম্বা কাপড় ছিল। এছাড়া কালো টেপ ও তার দিয়ে প্যাচানো তিনটি ককটেল সাদৃশ্য বস্তুও ছিলো পলিথিনে। উদ্ধারের পর সেগুলো প্রাথমিকভাবে পানিতে ভিজিয়ে নিস্ক্রিয় করার প্রাথমিক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়। এগুলো বোম বা বিস্ফোরক জাতীয় কোন দ্রব্য কিনা তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ গুলো সম্পূর্নভাবে নিস্কিয় করেছে র‌্যাব ১৩ বোম ডিস্পোজল ইউনিট। এসময় তারা নমুনা সংগ্রহ করেছেন পরীক্ষা নিরিক্ষার পর জানা যাবে কি ধরণের বোমা ছিলো এগুলো।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

গাইবান্ধায় দুটি পেট্রোল বোমা ও ৩টি ককটেল নিস্ক্রিয় করেছে বোম বিশেষজ্ঞ ইউনিট

আপডেট সময় ০৩:৪৩:৩৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১

গাইবান্ধা সংবাদদাতাঃ গাইবান্ধা জেলার সাদুল্ল্যাপুর উপজেলা শহরের একটি বাসার গেট থেকে থানা পুলিশ কতৃক উদ্ধারকৃত পরিত্যক্ত অবস্থায় পলিথিনে মোড়ানো ২টি পেট্রোল বোমা ও ৩টি ককটেল সাদৃশ্য বস্তু বোমা নিস্কিয় করেছে র‌্যাব ১৩ এর বোম ডিস্পোজল ইউনিট। আজ ২৫ জুলাই রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পোস্ট অফিস সংলগ্ন সাবেক বিজিবি’র সদস্য নুরুল আমিনের বাসার গেট থেকে এসব পেট্রোল বোমা ও ককটেল সাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার করে। এরপর এ দিন বিকালে নলডাঙ্গা ব্রীজের নিকট নিয়ে বোম গুলো নিস্কিয় করা হয়।এসময় র‌্যাব ১৩ গাইবান্ধা টিমসহ সাদুল্লাপুর থানা পুলিশের কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদ রানা জানান, বোতল দুটিতে পেট্রোল ছিলো না। তবে বোতলের মুখ পর্যন্ত লম্বা কাপড় ছিল। এছাড়া কালো টেপ ও তার দিয়ে প্যাচানো তিনটি ককটেল সাদৃশ্য বস্তুও ছিলো পলিথিনে। উদ্ধারের পর সেগুলো প্রাথমিকভাবে পানিতে ভিজিয়ে নিস্ক্রিয় করার প্রাথমিক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়। এগুলো বোম বা বিস্ফোরক জাতীয় কোন দ্রব্য কিনা তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ গুলো সম্পূর্নভাবে নিস্কিয় করেছে র‌্যাব ১৩ বোম ডিস্পোজল ইউনিট। এসময় তারা নমুনা সংগ্রহ করেছেন পরীক্ষা নিরিক্ষার পর জানা যাবে কি ধরণের বোমা ছিলো এগুলো।