ঢাকা ১১:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিএনজি চালক থেকে সাংবাদিক! ভূঁয়া সাংবাদিকের বিরুদ্ধে থানায় জিডি

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের বিশ্বনাথে সাংবাদিক পরিচয়ে ফেসবুক লাইভে সংবাদপত্র ও সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অপ্রপচার করায় এক ভূঁয়া সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। রবিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে বিশ্বনাথ থানায় এ ডায়েরী (জিডি নং-৭২৫) করেন ‘দৈনিক সবুজ সিলেট’র বিশ্বনাথ প্রতিনিধি, প্রেসক্লাব সহ-সভাপতি তজম্মুল আলী রাজু।

সাধারণ ডায়েরীতে প্রকাশ, উপজেলার দশঘর ইউনিয়নের কাশিমপুর গ্রামের মৃত সমছু মিয়ার ছেলে গাড়িচালক আনোয়ার হোসেন (৩৮), সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে নিজেকে দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে এলাকায় চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছিল। সে তার ইউটিইউব ‘‘. ঝুষযবঃ ঈযধহহবষ ২৪’’ চ্যানেল ও নিজ নামে নামীয় ফেসবুক আইডি (অহধিৎ ঐড়ংংধরহ) খুলে নিজে নিজেকেই ‘চীফ রিপোর্টার’র দায়িত্ব দিয়ে হলুদ সাংবাদিকতায় লিপ্ত হয়। গেল ১৭ জুলাই সে ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুকে দৈনিক সবুজ সিলেট ও সাংবাদিক তজম্মুল আলী রাজুর বিরুদ্ধে অর্থের দ্বার প্রভাবিত হয়ে মিথ্যে-বানোয়াট ও মানহানিকর ভিডিওচিত্র পোষ্ট করে ছড়িয়ে দেয়। এতে সামাজিক ও পারিবারিক ভাবে মানহানি ও চরম ক্ষতির সম্মুখিন হন তিনি। তার এমন কার্যকলাপে অতিষ্ঠ এলাকার একাধিক মানুষ।

জানা যায়, আনোয়ারের পিতা সমসু মিয়া ছিলেন নিরীহ আইসক্রিম বিক্রেতা। তিনি ফেরি করে গায়ে গায়ে আইসক্রিম বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। আনোয়ার একসময় জীবিকার তাগিদে গাড়ি চালকের পেশায় নিয়োজিত হয়। ঢাকায় প্রাইভেট গাড়িতে চাকুরীরত অবস্থায় চাকুরী চলে যাবার পর এলাকায় এসেই একদিনে সে ‘সাংবাদিক’ বনে যায়।

এ বিষয়ে কথা বিশ্বনাথ পুলিশ স্টেশনের অফিসার ইন-চার্জ গাজী আতাউর রহমান ‘বিশ্বনাথটুডে’কে বলেন, সাধারণ ডায়েরীর আলোকে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সিএনজি চালক থেকে সাংবাদিক! ভূঁয়া সাংবাদিকের বিরুদ্ধে থানায় জিডি

আপডেট সময় ০১:৪৬:২৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ জুলাই ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের বিশ্বনাথে সাংবাদিক পরিচয়ে ফেসবুক লাইভে সংবাদপত্র ও সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অপ্রপচার করায় এক ভূঁয়া সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। রবিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে বিশ্বনাথ থানায় এ ডায়েরী (জিডি নং-৭২৫) করেন ‘দৈনিক সবুজ সিলেট’র বিশ্বনাথ প্রতিনিধি, প্রেসক্লাব সহ-সভাপতি তজম্মুল আলী রাজু।

সাধারণ ডায়েরীতে প্রকাশ, উপজেলার দশঘর ইউনিয়নের কাশিমপুর গ্রামের মৃত সমছু মিয়ার ছেলে গাড়িচালক আনোয়ার হোসেন (৩৮), সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে নিজেকে দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে এলাকায় চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছিল। সে তার ইউটিইউব ‘‘. ঝুষযবঃ ঈযধহহবষ ২৪’’ চ্যানেল ও নিজ নামে নামীয় ফেসবুক আইডি (অহধিৎ ঐড়ংংধরহ) খুলে নিজে নিজেকেই ‘চীফ রিপোর্টার’র দায়িত্ব দিয়ে হলুদ সাংবাদিকতায় লিপ্ত হয়। গেল ১৭ জুলাই সে ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুকে দৈনিক সবুজ সিলেট ও সাংবাদিক তজম্মুল আলী রাজুর বিরুদ্ধে অর্থের দ্বার প্রভাবিত হয়ে মিথ্যে-বানোয়াট ও মানহানিকর ভিডিওচিত্র পোষ্ট করে ছড়িয়ে দেয়। এতে সামাজিক ও পারিবারিক ভাবে মানহানি ও চরম ক্ষতির সম্মুখিন হন তিনি। তার এমন কার্যকলাপে অতিষ্ঠ এলাকার একাধিক মানুষ।

জানা যায়, আনোয়ারের পিতা সমসু মিয়া ছিলেন নিরীহ আইসক্রিম বিক্রেতা। তিনি ফেরি করে গায়ে গায়ে আইসক্রিম বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। আনোয়ার একসময় জীবিকার তাগিদে গাড়ি চালকের পেশায় নিয়োজিত হয়। ঢাকায় প্রাইভেট গাড়িতে চাকুরীরত অবস্থায় চাকুরী চলে যাবার পর এলাকায় এসেই একদিনে সে ‘সাংবাদিক’ বনে যায়।

এ বিষয়ে কথা বিশ্বনাথ পুলিশ স্টেশনের অফিসার ইন-চার্জ গাজী আতাউর রহমান ‘বিশ্বনাথটুডে’কে বলেন, সাধারণ ডায়েরীর আলোকে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।