ঢাকা ০৬:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের দাবি সরকারি এত সাহায্য সহযোগিতা গেল কোথায়!

Exif_JPEG_420

খোর্শেদ আলম ঢাকা::​ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রত্যেকটি গরীব-শ্রমজীবী মানুষদের খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা করার জন্য ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু গত দেড় বছরে করোনা মহামারীর মধ্যে ১১ লক্ষ পরিবহন শ্রমিকরা দু একটি ব্যতিক্রম ছাড়া সিংহভাগ পরিবহন শ্রমিকেরা সরকারি সাহায্য সহায়তা পায়নি। তা হলে প্রশ্ন দাড়ায়! এত সরকারি সাহায্য-সহায়তা গেল কোথায়? বাংলাদেশ ফটো রিক্সা হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন ঢাকা জেলা প্রশাসন, ঢাকা সিটি করপোরেশন দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে আবেদন করার পরেও পরিবহন শ্রমিকেরা এ পর্যন্ত কোন সরকারি সাহায্য-সহায়তা পায়নি।
আজ ১২ জুলাই সকাল ১১টায় বাংলাদেশ অটোরিক্সা হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিমত প্রকাশ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে এ উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা মিরাজ খান, কেন্দ্রীয় নেতা জয়নাল আবেদীন শান্ত, রামপুরা থানার নেতা ছগির হোসেন, বেলাল হোসেন, মোহাম্মদপুর থানার নেতা মোঃ ইব্রাহিম, কোতয়ালী থানার নেতা মোঃ উজ্জল প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে নিন্মোক্ত দাবি সমূহ তুলে ধরা হয়-

১। লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবহন শ্রমিকদের খাদ্য ও আর্থক সহায়তা দিতে হবে।
২। পরিবহন শ্রমিকদের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালু করতে হবে।
৩। চালক ও তার পরিবারের সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ও টিকা নিশ্চিত করতে হবে।
৪। পরিবহন শ্রমিকদের উপর হয়রানী-নির্যাতন বন্ধ করতে হবে।
৫। পরিবহন শ্রমিকদের লাইসেন্স গ্রহণে হয়রানী ও দুর্নীতি বন্ধসহ নিয়োগপত্র প্রদান করতে হবে।

ট্যাগস

হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের দাবি সরকারি এত সাহায্য সহযোগিতা গেল কোথায়!

আপডেট সময় ১২:৪৩:৪৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৮ জুলাই ২০২১

খোর্শেদ আলম ঢাকা::​ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রত্যেকটি গরীব-শ্রমজীবী মানুষদের খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা করার জন্য ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু গত দেড় বছরে করোনা মহামারীর মধ্যে ১১ লক্ষ পরিবহন শ্রমিকরা দু একটি ব্যতিক্রম ছাড়া সিংহভাগ পরিবহন শ্রমিকেরা সরকারি সাহায্য সহায়তা পায়নি। তা হলে প্রশ্ন দাড়ায়! এত সরকারি সাহায্য-সহায়তা গেল কোথায়? বাংলাদেশ ফটো রিক্সা হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন ঢাকা জেলা প্রশাসন, ঢাকা সিটি করপোরেশন দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে আবেদন করার পরেও পরিবহন শ্রমিকেরা এ পর্যন্ত কোন সরকারি সাহায্য-সহায়তা পায়নি।
আজ ১২ জুলাই সকাল ১১টায় বাংলাদেশ অটোরিক্সা হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিমত প্রকাশ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে এ উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা মিরাজ খান, কেন্দ্রীয় নেতা জয়নাল আবেদীন শান্ত, রামপুরা থানার নেতা ছগির হোসেন, বেলাল হোসেন, মোহাম্মদপুর থানার নেতা মোঃ ইব্রাহিম, কোতয়ালী থানার নেতা মোঃ উজ্জল প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে নিন্মোক্ত দাবি সমূহ তুলে ধরা হয়-

১। লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবহন শ্রমিকদের খাদ্য ও আর্থক সহায়তা দিতে হবে।
২। পরিবহন শ্রমিকদের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালু করতে হবে।
৩। চালক ও তার পরিবারের সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ও টিকা নিশ্চিত করতে হবে।
৪। পরিবহন শ্রমিকদের উপর হয়রানী-নির্যাতন বন্ধ করতে হবে।
৫। পরিবহন শ্রমিকদের লাইসেন্স গ্রহণে হয়রানী ও দুর্নীতি বন্ধসহ নিয়োগপত্র প্রদান করতে হবে।