ঢাকা ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনা’র কারনে মানুষের পরিবর্তে রোবট ব্যবহারে প্রাধান্য দিচ্ছে সৌদি সরকার

মহামরি করোনা ভাইরাসের কারণে এবার মানুষের পরিবর্তে হজ্জ ব্যবস্থাপনায় প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রাধান্য দিচ্ছে সৌদিআরব সরকার। সম্প্রতি মক্কা-মদিনার গ্র্যান্ড মসজিদ জীবাণুমুক্তকরণে মানুষের পাশাপাশি দশটি স্মার্ট রোবট চালু করা হয়েছে বলে সৌদিআরব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।
পবিত্র দুই মসজিদের গ্র্যান্ড প্রেসিডেন্সি ফর অ্যাফেয়ার্সের দেওয়া তথ্যমতে, রোবটগুলো স্বয়ংক্রিয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা অনুসারে ছয়টি স্তরে নিরাপদ স্বাস্থ্যকর পরিবেশ এবং জীবাণুমুক্তকরণের প্রয়োজনীয়তার স্মার্ট বিশ্লেষণ নিশ্চিত করবে।

কাবা শরিফের পরিবেশ বিভাগের প্রধান হাসান আল সৌহিরি বলেন, ব্যাটারি বিশিষ্ট রোবটগুলো কোনো মানুষের হস্তক্ষেপ ছাড়াই পাঁচ থেকে আট ঘণ্টা চলতে পারে। এর মধ্যে প্রারম্ভিক সতর্কতা বৈশিষ্ট্যও যুক্ত রয়েছে। শুধু তাই নয়, মানচিত্রের চার্ট করার জন্য ডিভাইসটিতে একটি উচ্চমানের রাডার ক্যামেরা লাগানো হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, হাজিদের ভিড় সামাল দিতে ও হজ ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার হচ্ছে লক্ষণীয় বিষয়। হাজীদের গতিবিধি ও চলাফেরা নিয়ন্ত্রণ কম্পিউটার সংযোগের মাধ্যমে নিশ্চিত করা হবে। সব হাজী যাতে হজের বিভিন্ন ইবাদত সময়মতো সঠিকভাবে পালন করতে পারেন সে জন্য রোবটগুলো দিনরাত নির্দেশনা দিয়ে যাবে।
হজ্জ শেষে হাজিরা যেন নিরাপদে দেশে ফিরে যেতে পারেন, সে ক্ষেত্রেও দিকনির্দেশনা দেবে রোবটগুলো। এ জন্য হজ্জ পালনে নির্দিষ্ট সময়সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। সূত্র: গালফ নিউজ

ট্যাগস

করোনা’র কারনে মানুষের পরিবর্তে রোবট ব্যবহারে প্রাধান্য দিচ্ছে সৌদি সরকার

আপডেট সময় ০৩:০১:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ জুন ২০২১

মহামরি করোনা ভাইরাসের কারণে এবার মানুষের পরিবর্তে হজ্জ ব্যবস্থাপনায় প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রাধান্য দিচ্ছে সৌদিআরব সরকার। সম্প্রতি মক্কা-মদিনার গ্র্যান্ড মসজিদ জীবাণুমুক্তকরণে মানুষের পাশাপাশি দশটি স্মার্ট রোবট চালু করা হয়েছে বলে সৌদিআরব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।
পবিত্র দুই মসজিদের গ্র্যান্ড প্রেসিডেন্সি ফর অ্যাফেয়ার্সের দেওয়া তথ্যমতে, রোবটগুলো স্বয়ংক্রিয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা অনুসারে ছয়টি স্তরে নিরাপদ স্বাস্থ্যকর পরিবেশ এবং জীবাণুমুক্তকরণের প্রয়োজনীয়তার স্মার্ট বিশ্লেষণ নিশ্চিত করবে।

কাবা শরিফের পরিবেশ বিভাগের প্রধান হাসান আল সৌহিরি বলেন, ব্যাটারি বিশিষ্ট রোবটগুলো কোনো মানুষের হস্তক্ষেপ ছাড়াই পাঁচ থেকে আট ঘণ্টা চলতে পারে। এর মধ্যে প্রারম্ভিক সতর্কতা বৈশিষ্ট্যও যুক্ত রয়েছে। শুধু তাই নয়, মানচিত্রের চার্ট করার জন্য ডিভাইসটিতে একটি উচ্চমানের রাডার ক্যামেরা লাগানো হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, হাজিদের ভিড় সামাল দিতে ও হজ ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার হচ্ছে লক্ষণীয় বিষয়। হাজীদের গতিবিধি ও চলাফেরা নিয়ন্ত্রণ কম্পিউটার সংযোগের মাধ্যমে নিশ্চিত করা হবে। সব হাজী যাতে হজের বিভিন্ন ইবাদত সময়মতো সঠিকভাবে পালন করতে পারেন সে জন্য রোবটগুলো দিনরাত নির্দেশনা দিয়ে যাবে।
হজ্জ শেষে হাজিরা যেন নিরাপদে দেশে ফিরে যেতে পারেন, সে ক্ষেত্রেও দিকনির্দেশনা দেবে রোবটগুলো। এ জন্য হজ্জ পালনে নির্দিষ্ট সময়সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। সূত্র: গালফ নিউজ