ঢাকা ০২:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে সীমিত পরিসরে কোনো সত্যকে গোপন করার অবকাশ রয়েছে!- মামুনুল হক

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক বলেছেন স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে এবং স্ত্রীকে খুশি করতে প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে সীমিত পরিসরে কোনো সত্যকে গোপন করারও অবকাশ রয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) ফেসবুক লাইভে এসে এমন মন্তব্য করেন তিনি। এই মন্তব্য টি নিয়ে বাংলাদেশে বেশ আলোচনা সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।
এর আগে ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রয়্যাল রিসোর্টে এক নারীর সঙ্গে অবস্থান করার ঘটনায় স্থানীয় সরকার সমর্থকেরা মামুনুল হককে ঘেরাও করেন। ওই দিন তিনি জানান, সঙ্গে থাকা নারী তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী। দুই বছর আগে তিনি বিয়ে করেছেন। কয়েকটি ফাঁস হওয়া ফোনালাপের সূত্রে জানা যায়, দ্বিতীয় বিয়ে করার বিষয়টি মামুনুল হকের প্রথম স্ত্রী জানতেন না। তা ছাড়া রিসোর্টে স্ত্রীর নাম সঠিক বলেননি মামুনুল।
ওই ঘটনার পাঁচ দিন পর মামুনুল হক লাইভে এসে বলেছেন, ‘আমি একাধিক বিয়ে করেছি।’ তিনি দাবি করেন, ইসলামি শরিয়ত অনুযায়ী ও বাংলাদেশের আইনে একাধিক বিয়ের ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। নিজের একাধিক বিয়ের কথা উল্লেখ করে মামুনুল বলেন, একজন পুরুষ চারটি বিয়ে করতে পারেন। চারটি বিয়ে করলে কার কী?
মামুনুল হক হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং খেলাফত মজলিসের মহাসচিব। রয়্যাল রিসোর্টে তিনি ঘেরাও থাকা অবস্থায় স্থানীয় হেফাজতে ইসলামের নেতা–কর্মীরা সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর করেন। পরে মামুনুল হককে ছিনিয়ে নিয়ে যান তাঁরা। তবে মাওলানা মামুনুল হকের এই বিষয়টি নিয়ে হেফাজতের নেতাকর্মীদের মধ্যে এখন বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে আশংকা করা হচ্ছে হেফাজতের সিনিয়র নেতৃত্ব থেকে থাকে সরিয়ে দেয়া হতে পারে।

ট্যাগস

স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে সীমিত পরিসরে কোনো সত্যকে গোপন করার অবকাশ রয়েছে!- মামুনুল হক

আপডেট সময় ০৪:২৩:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৯ এপ্রিল ২০২১

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক বলেছেন স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে এবং স্ত্রীকে খুশি করতে প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে সীমিত পরিসরে কোনো সত্যকে গোপন করারও অবকাশ রয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) ফেসবুক লাইভে এসে এমন মন্তব্য করেন তিনি। এই মন্তব্য টি নিয়ে বাংলাদেশে বেশ আলোচনা সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।
এর আগে ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রয়্যাল রিসোর্টে এক নারীর সঙ্গে অবস্থান করার ঘটনায় স্থানীয় সরকার সমর্থকেরা মামুনুল হককে ঘেরাও করেন। ওই দিন তিনি জানান, সঙ্গে থাকা নারী তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী। দুই বছর আগে তিনি বিয়ে করেছেন। কয়েকটি ফাঁস হওয়া ফোনালাপের সূত্রে জানা যায়, দ্বিতীয় বিয়ে করার বিষয়টি মামুনুল হকের প্রথম স্ত্রী জানতেন না। তা ছাড়া রিসোর্টে স্ত্রীর নাম সঠিক বলেননি মামুনুল।
ওই ঘটনার পাঁচ দিন পর মামুনুল হক লাইভে এসে বলেছেন, ‘আমি একাধিক বিয়ে করেছি।’ তিনি দাবি করেন, ইসলামি শরিয়ত অনুযায়ী ও বাংলাদেশের আইনে একাধিক বিয়ের ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। নিজের একাধিক বিয়ের কথা উল্লেখ করে মামুনুল বলেন, একজন পুরুষ চারটি বিয়ে করতে পারেন। চারটি বিয়ে করলে কার কী?
মামুনুল হক হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং খেলাফত মজলিসের মহাসচিব। রয়্যাল রিসোর্টে তিনি ঘেরাও থাকা অবস্থায় স্থানীয় হেফাজতে ইসলামের নেতা–কর্মীরা সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর করেন। পরে মামুনুল হককে ছিনিয়ে নিয়ে যান তাঁরা। তবে মাওলানা মামুনুল হকের এই বিষয়টি নিয়ে হেফাজতের নেতাকর্মীদের মধ্যে এখন বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে আশংকা করা হচ্ছে হেফাজতের সিনিয়র নেতৃত্ব থেকে থাকে সরিয়ে দেয়া হতে পারে।