ঢাকা ০৮:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্বনাথে পানি নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৫

বিশ্বনাথ সংবাদদাতাঃ সিলেটের বিশ্বনাথে চাউলধনী হাওরের পানি নিয়ে কৃষকদের সাথে জলমহালের ইজারাদার পক্ষের (সাইফুল ইসলাম গংদের) সংঘর্ষে ছরকুম আলী দয়াল (৭৫) নামের এক কৃষক ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার চৈতননগর গ্রামের মৃত আকবর আলীর পুত্র।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে চাউলধনী হাওরের পুর্ব পাশে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আরও কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এর আগে বিগত ২০ জানুয়ারী উপজেলা সদরে লাঙ্গল, জোয়াল, মই, কাটিয়াসহ কৃষি উপকরণ নিয়ে বুধবার বিশ্বনাথ বাসিয়া ব্রিজে উপর মানববন্ধনে কর্মসুচী পালন করেন সহস্রাধীক কৃষক।

মানববন্ধন শেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে একটি স্বারকলিপি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট দাখিল করেন। এতে চাউলধনী হাওরের সরকারি জলাশয়ের সাথে কৃষকদের ভূমির সীমানা নির্ধারণ, কৃষকদের বিরুদ্ধে সাজানো মিথ্যা মাললা প্রত্যাহার, চাউলধনী হাওর রক্ষায় সুইচ গেইট ও বেড়ি ভাঁধ নির্মাণ, দেশীয় প্রজাতির মাছ ও জীব বৈচিত্র রক্ষায় হাওর উন্নয়ন ও লীজ গ্রহীতার নিকট থেকে কৃষকদের ক্ষতিপুরণ আদায়ের দাবি জানানো হয়।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

বিশ্বনাথে পানি নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৫

আপডেট সময় ০২:০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২১

বিশ্বনাথ সংবাদদাতাঃ সিলেটের বিশ্বনাথে চাউলধনী হাওরের পানি নিয়ে কৃষকদের সাথে জলমহালের ইজারাদার পক্ষের (সাইফুল ইসলাম গংদের) সংঘর্ষে ছরকুম আলী দয়াল (৭৫) নামের এক কৃষক ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার চৈতননগর গ্রামের মৃত আকবর আলীর পুত্র।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে চাউলধনী হাওরের পুর্ব পাশে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আরও কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এর আগে বিগত ২০ জানুয়ারী উপজেলা সদরে লাঙ্গল, জোয়াল, মই, কাটিয়াসহ কৃষি উপকরণ নিয়ে বুধবার বিশ্বনাথ বাসিয়া ব্রিজে উপর মানববন্ধনে কর্মসুচী পালন করেন সহস্রাধীক কৃষক।

মানববন্ধন শেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে একটি স্বারকলিপি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট দাখিল করেন। এতে চাউলধনী হাওরের সরকারি জলাশয়ের সাথে কৃষকদের ভূমির সীমানা নির্ধারণ, কৃষকদের বিরুদ্ধে সাজানো মিথ্যা মাললা প্রত্যাহার, চাউলধনী হাওর রক্ষায় সুইচ গেইট ও বেড়ি ভাঁধ নির্মাণ, দেশীয় প্রজাতির মাছ ও জীব বৈচিত্র রক্ষায় হাওর উন্নয়ন ও লীজ গ্রহীতার নিকট থেকে কৃষকদের ক্ষতিপুরণ আদায়ের দাবি জানানো হয়।