ঢাকা ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ব্রাজিলে বিশ্বনাথের যুবকের মৃত্যু

বিশ্বনাথ সংবাদদাতাঃ মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে ব্রাজিলের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন রুমেল আহমদ (৪০) নামের সিলেটের বিশ্বনাথের এক যুবক। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের তাতিকোনা গ্রামের মৃত হিরন মিয়ার ছেলে। সোমবার (১৮ জানুয়ারী) বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় তিনি মারা যান। পেশায় ব্যবসায়ী রুমেল ৩ সন্তানের জনক ছিলেন।
পারিবারিক সূত্র জানায়, প্রায় ৭ বছর পূর্বে ব্রাজিলে পাড়ি জমান রুমেল আহমদ। কয়েক বছর পর তার স্ত্রী সন্তানদেরও সেখানে নিয়ে যান। ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাসিলিয়া শহরে সপরিবারে বসবাস করে আসছিলেন তিনি। দু’মাস পূর্বে একটি মেলায় স্টল দিতে সাও পাওলো শহরে একা যান রুমেল। সেখানে তার করোনা পজেটিভ হয়। শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হওয়ায় গত ২৮ ডিসেম্বর তাকে সাও পাওলোর স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় সোমবার ভোরে তিনি মারা যান।
দেশে থাকা রুমেল আহমদের বড়ভাই পল্লী চিকিৎসক ইব্রাহিম লোদী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমাদের ৫ ভাই ও ৪ বোনের মধ্যে সে ছিল ৪র্থ। গতকাল পর্যন্ত তার অবস্থা অনেকটাই উন্নতির দিকে ছিল। কিন্তু আজ ভোরে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে সে মারা যায়। দুঃসংবাদটি শোনার পর থেকে বাকরুদ্ধ হয়ে গেছি। পরিবারের কারোরই কান্না থামছে না।

ট্যাগস

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ব্রাজিলে বিশ্বনাথের যুবকের মৃত্যু

আপডেট সময় ০৩:২৯:৩৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১

বিশ্বনাথ সংবাদদাতাঃ মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে ব্রাজিলের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন রুমেল আহমদ (৪০) নামের সিলেটের বিশ্বনাথের এক যুবক। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের তাতিকোনা গ্রামের মৃত হিরন মিয়ার ছেলে। সোমবার (১৮ জানুয়ারী) বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় তিনি মারা যান। পেশায় ব্যবসায়ী রুমেল ৩ সন্তানের জনক ছিলেন।
পারিবারিক সূত্র জানায়, প্রায় ৭ বছর পূর্বে ব্রাজিলে পাড়ি জমান রুমেল আহমদ। কয়েক বছর পর তার স্ত্রী সন্তানদেরও সেখানে নিয়ে যান। ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাসিলিয়া শহরে সপরিবারে বসবাস করে আসছিলেন তিনি। দু’মাস পূর্বে একটি মেলায় স্টল দিতে সাও পাওলো শহরে একা যান রুমেল। সেখানে তার করোনা পজেটিভ হয়। শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হওয়ায় গত ২৮ ডিসেম্বর তাকে সাও পাওলোর স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় সোমবার ভোরে তিনি মারা যান।
দেশে থাকা রুমেল আহমদের বড়ভাই পল্লী চিকিৎসক ইব্রাহিম লোদী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমাদের ৫ ভাই ও ৪ বোনের মধ্যে সে ছিল ৪র্থ। গতকাল পর্যন্ত তার অবস্থা অনেকটাই উন্নতির দিকে ছিল। কিন্তু আজ ভোরে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে সে মারা যায়। দুঃসংবাদটি শোনার পর থেকে বাকরুদ্ধ হয়ে গেছি। পরিবারের কারোরই কান্না থামছে না।