ঢাকা ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে জরিমানা, ব্যাঙের ছাতার মতো অসংখ্য অবৈধ চিকিৎসা সেবা!

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতাঃ অনভিজ্ঞ টেকনিশিয়ান ও নিবন্ধনহীন ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা প্যাথলজি ও ডায়াগনস্টিক চিহ্নিত করতে লক্ষ্মীপুরে অভিযান চালিয়ে তিন ডায়াগনষ্টিক সেন্টার ও হাসপাতালের ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় জেলা সিভিল সার্জন মো. আবদুল গফ্ফারের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে জরিমানা আদায় করেন সহকারি কমিশানর (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বনি আমিন ।
এতে নিবন্ধন না থাকা, অভিজ্ঞ টেকনিশিয়ান ও মান সম্মত যন্ত্রপাতি ব্যবহার না করার অপরাধে এ মীম ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫ হাজার টাকা, মা ও শিশু হাসপাতাল (প্রাঃ) লিঃকে ২০ হাজার ও নোভা ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ২০ হাজার করে মোট ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
জেলা সিভিল সার্জন মো. আবদুল গফ্ফার জানান, নির্দেশনা অমান্য করে লক্ষ্মীপুরে একেরপরএক ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হাসপাতাল গড়ে উঠেছে। তাদের নেই নিবন্ধন, দক্ষ টেকনিশিয়ান বা যন্ত্রপাতি। তারা অসহায় গরীব রোগীদের বিভিন্ন প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়ায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে তিনটি প্রতিষ্ঠানকে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।​
এ সময় লক্ষীপুরের গণমানুষ অবৈধ ও নিবন্ধনহীন হাসপাতাল ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক ও সাপ্তাহিক অতিথি ডাক্তারদের বিরুদ্ধে এরকম অভিযান অব্যাহত রাখতে জেলা সিভিল সার্জনের কাছে আহ্বান জানান
অভিযানের বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন মোহাম্মদ আব্দুল গফফার​ বলেন -অবৈধ ডায়াগনস্টিক ও হাসপাতালের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যহত থাকবে।
ট্যাগস

হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে জরিমানা, ব্যাঙের ছাতার মতো অসংখ্য অবৈধ চিকিৎসা সেবা!

আপডেট সময় ০৩:১০:৫২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ জানুয়ারী ২০২১
লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতাঃ অনভিজ্ঞ টেকনিশিয়ান ও নিবন্ধনহীন ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা প্যাথলজি ও ডায়াগনস্টিক চিহ্নিত করতে লক্ষ্মীপুরে অভিযান চালিয়ে তিন ডায়াগনষ্টিক সেন্টার ও হাসপাতালের ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় জেলা সিভিল সার্জন মো. আবদুল গফ্ফারের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে জরিমানা আদায় করেন সহকারি কমিশানর (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বনি আমিন ।
এতে নিবন্ধন না থাকা, অভিজ্ঞ টেকনিশিয়ান ও মান সম্মত যন্ত্রপাতি ব্যবহার না করার অপরাধে এ মীম ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫ হাজার টাকা, মা ও শিশু হাসপাতাল (প্রাঃ) লিঃকে ২০ হাজার ও নোভা ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ২০ হাজার করে মোট ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
জেলা সিভিল সার্জন মো. আবদুল গফ্ফার জানান, নির্দেশনা অমান্য করে লক্ষ্মীপুরে একেরপরএক ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হাসপাতাল গড়ে উঠেছে। তাদের নেই নিবন্ধন, দক্ষ টেকনিশিয়ান বা যন্ত্রপাতি। তারা অসহায় গরীব রোগীদের বিভিন্ন প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়ায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে তিনটি প্রতিষ্ঠানকে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।​
এ সময় লক্ষীপুরের গণমানুষ অবৈধ ও নিবন্ধনহীন হাসপাতাল ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক ও সাপ্তাহিক অতিথি ডাক্তারদের বিরুদ্ধে এরকম অভিযান অব্যাহত রাখতে জেলা সিভিল সার্জনের কাছে আহ্বান জানান
অভিযানের বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন মোহাম্মদ আব্দুল গফফার​ বলেন -অবৈধ ডায়াগনস্টিক ও হাসপাতালের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যহত থাকবে।