ঢাকা ১১:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফিরা যাত্রীদের নিজ খরচে যেতে হবে সরাসরি দু’সপ্তাহের কোয়ারান্টাইনে

ডেস্ক রিপোর্টঃ যুক্তরাজ্যে আবারও করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় চলে যাওয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিরা ইংল্যান্ড থেকে ফিরলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রাখা বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রিসভা। আজ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার ২৮ ডিসেম্বর মন্ত্রিসভার ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

উক্ত এই বিশেষ বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন বিশেষ করে লন্ডন থেকে যারা আসবে, তাদের কোয়ারেন্টিনে খুব কঠোর হতে হবে। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) আমাদের দায়িত্ব দিয়েছেন, আসা বন্ধ করা হবে না, তবে স্ট্রং কোয়ারেন্টিনে যেতে হবে। লন্ডন ফ্লাইট থেকে যেই আসুক, তার যদি গতকালের কোভিড রিপোর্টও নেগেটিভ থাকে, তারপরও বাধ্যতামূলক ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। তাদের প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। ’
তাদের কোথায় রাখা হবে, এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আমাদের খুব পরিষ্কার নির্দেশনা দিয়েছেন, আমরা রাতে মিটিং করবো। সেখানে টেকনিক্যাল লোকজন নিয়ে মিটিং করে সিদ্ধান্তে আসবো। আমাদের যে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন সেন্টার দিয়াবাড়ি এবং হজ ক্যাম্পে সেখানে রাখা হবে ১৪ দিন। আর কিছু হোটেলের ব্যবস্থা থাকতে হবে। মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত হলো, লন্ডন থেকে যারা আসবে, তাদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। তবে কবে থেকে রাখা হবে তা মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হবে। তাদের সরকারের তত্ত্বাবধানে রাখা হবে, যেভাবে সিঙ্গাপুর বা মালয়েশিয়ায় আছে। ’
ঢাকা হয়ে আসলে ঢাকায় এবং সিলেট হয়ে আসলে সিলেটে কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। তিনি আরো জানান মন্ত্রী পরিষদের এই সিদ্ধান্ত আজ থেকে কার্যকর হবে না তা হলে অনেকেই তার প্রস্তুতি নিতে পারবেননা তাই আগামী দুএক দিনের মধ্যে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী পরিষদের এই সচিব।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফিরা যাত্রীদের নিজ খরচে যেতে হবে সরাসরি দু’সপ্তাহের কোয়ারান্টাইনে

আপডেট সময় ০৪:৪৭:৪৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২০

ডেস্ক রিপোর্টঃ যুক্তরাজ্যে আবারও করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় চলে যাওয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিরা ইংল্যান্ড থেকে ফিরলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রাখা বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রিসভা। আজ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার ২৮ ডিসেম্বর মন্ত্রিসভার ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

উক্ত এই বিশেষ বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন বিশেষ করে লন্ডন থেকে যারা আসবে, তাদের কোয়ারেন্টিনে খুব কঠোর হতে হবে। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) আমাদের দায়িত্ব দিয়েছেন, আসা বন্ধ করা হবে না, তবে স্ট্রং কোয়ারেন্টিনে যেতে হবে। লন্ডন ফ্লাইট থেকে যেই আসুক, তার যদি গতকালের কোভিড রিপোর্টও নেগেটিভ থাকে, তারপরও বাধ্যতামূলক ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। তাদের প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। ’
তাদের কোথায় রাখা হবে, এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আমাদের খুব পরিষ্কার নির্দেশনা দিয়েছেন, আমরা রাতে মিটিং করবো। সেখানে টেকনিক্যাল লোকজন নিয়ে মিটিং করে সিদ্ধান্তে আসবো। আমাদের যে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন সেন্টার দিয়াবাড়ি এবং হজ ক্যাম্পে সেখানে রাখা হবে ১৪ দিন। আর কিছু হোটেলের ব্যবস্থা থাকতে হবে। মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত হলো, লন্ডন থেকে যারা আসবে, তাদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। তবে কবে থেকে রাখা হবে তা মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হবে। তাদের সরকারের তত্ত্বাবধানে রাখা হবে, যেভাবে সিঙ্গাপুর বা মালয়েশিয়ায় আছে। ’
ঢাকা হয়ে আসলে ঢাকায় এবং সিলেট হয়ে আসলে সিলেটে কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। তিনি আরো জানান মন্ত্রী পরিষদের এই সিদ্ধান্ত আজ থেকে কার্যকর হবে না তা হলে অনেকেই তার প্রস্তুতি নিতে পারবেননা তাই আগামী দুএক দিনের মধ্যে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী পরিষদের এই সচিব।