ঢাকা ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ব্রিটেনের মধ্যে বহুল প্রত্যাশিত বানিজ্য চুক্তি সাক্ষর।

ডেস্ক রিপোর্টঃ দীর্ঘ সময়ের একটি অস্থিতিশীলতা ও
সকল জল্পনা-কল্পনা এবং আলোচনা-সমালোচনার পর অবশেষে খুলতে চলেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে যুুুুুুুুক্তরাজ্যের ব্রেক্সিট পরবর্তী বাণিজ্য চুক্তির জট। আজ বৃহস্পতিবার লন্ডনে দুই পক্ষের এ বিষয়ক একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে বলে জানা গেছে । আগামী ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ শেষ হতে চলেছে ব্রেক্সিট ট্রানজিশন এর পিরিয়ড। আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে আর ইইউ এর সঙ্গে থাকছে না যুক্তরাজ্য। যার ফলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য হিসেবে তারা এতদিন অভিন্ন মুদ্রা, উন্মুক্ত সীমান্তের মতো যেসব সুযোগ-সুবিধা পেত, সেগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। যার কারণে ট্রানজিশন পিরিয়ড শেষ হওয়ার আগে নতুন একটি বাণিজ্য চুক্তি করতে ব্যস্ত হয়েছে দুই পক্ষ।
উভয় পক্ষের বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে মন্তব্য করে ইইউ প্রেসিডেন্ট উরসালা ভন ডার লিওন বলেন আমাদের মধ্যে একটি নিরপেক্ষ ও সামঞ্জস্যপূর্ণ চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। যা উভয় পক্ষের জন্যে ভালোই হবে যা আমাদের জন্য অন্তত মঙ্গলজনক।
আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা রয়টার্স এর সূত্রে জানা যায় ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এই সাক্ষর নিয়ে তার অনুভূতি জানাতে গিয়ে দুই হাত উঁচু করে বলেন আমাদেরকে অনেকে বলেছিলেন আমরা এটি করতে ব্যর্থ হবো কিন্তু আমরা এটি করে দেখিয়েছি আমরা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ব্রিটেনের মধ্যে বহুল প্রত্যাশিত বানিজ্য চুক্তি সাক্ষর।

আপডেট সময় ০২:২৪:১৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২০

ডেস্ক রিপোর্টঃ দীর্ঘ সময়ের একটি অস্থিতিশীলতা ও
সকল জল্পনা-কল্পনা এবং আলোচনা-সমালোচনার পর অবশেষে খুলতে চলেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে যুুুুুুুুক্তরাজ্যের ব্রেক্সিট পরবর্তী বাণিজ্য চুক্তির জট। আজ বৃহস্পতিবার লন্ডনে দুই পক্ষের এ বিষয়ক একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে বলে জানা গেছে । আগামী ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ শেষ হতে চলেছে ব্রেক্সিট ট্রানজিশন এর পিরিয়ড। আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে আর ইইউ এর সঙ্গে থাকছে না যুক্তরাজ্য। যার ফলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য হিসেবে তারা এতদিন অভিন্ন মুদ্রা, উন্মুক্ত সীমান্তের মতো যেসব সুযোগ-সুবিধা পেত, সেগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। যার কারণে ট্রানজিশন পিরিয়ড শেষ হওয়ার আগে নতুন একটি বাণিজ্য চুক্তি করতে ব্যস্ত হয়েছে দুই পক্ষ।
উভয় পক্ষের বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে মন্তব্য করে ইইউ প্রেসিডেন্ট উরসালা ভন ডার লিওন বলেন আমাদের মধ্যে একটি নিরপেক্ষ ও সামঞ্জস্যপূর্ণ চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। যা উভয় পক্ষের জন্যে ভালোই হবে যা আমাদের জন্য অন্তত মঙ্গলজনক।
আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা রয়টার্স এর সূত্রে জানা যায় ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এই সাক্ষর নিয়ে তার অনুভূতি জানাতে গিয়ে দুই হাত উঁচু করে বলেন আমাদেরকে অনেকে বলেছিলেন আমরা এটি করতে ব্যর্থ হবো কিন্তু আমরা এটি করে দেখিয়েছি আমরা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি।