ঢাকা ০৫:৩৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরী সভা।

মোঃ আরাফাত রহমান: জাককানইবিঃ
​জাতীয় কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩০ তম একাডেমিক কাউন্সিল (জরুরী) সভা বুধবার (১১ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম পর্যালোচনা করে সর্বসম্মতিক্রমে কয়েকটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।
সিদ্ধান্তগুলো হলো:
১. বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগের যেসকল বর্ষ/ সিমেস্টারের অনুষ্ঠিত পরীক্ষার ফলাফল স্থগিত রয়েছে তা দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রকাশ করার জন্য প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
২. বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সকল বিভাগের স্নাতক চতুর্থ বর্ষ অষ্টম সিমেস্টারের সমাপনী পরীক্ষা ও মাষ্টার্স দ্বিতীয় সিমেস্টারের সমাপনী পরীক্ষা গ্রহণ বাকী রয়েছে তা গ্রহণের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ থাকার সরকারি সিদ্ধান্ত রয়েছে, এরপরে যদি সরকারি ঘোষণায় একাডেমিক কার্যক্রম চালানোর অনুমতি দেওয়া হয় কেবলমাত্র তবেই স্বাস্থ্যবিধি ( আবাসিক হল না খুলে) মেনে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।
৩. ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষা গুচ্ছ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষা অনলাইনে নয় বরং সরাসরি আয়োজনের পক্ষে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছে একাডেমিক কাউন্সিল।​
সভায় কমিটির সদস্য সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. মোঃ হুমায়ূন কবীরসহ বিভিন্ন অনুষদের ডীন ও বিভাগীয় প্রধানরা অংশ গ্রহণ করেন।
ট্যাগস

কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরী সভা।

আপডেট সময় ০৪:০০:০৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর ২০২০
মোঃ আরাফাত রহমান: জাককানইবিঃ
​জাতীয় কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩০ তম একাডেমিক কাউন্সিল (জরুরী) সভা বুধবার (১১ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম পর্যালোচনা করে সর্বসম্মতিক্রমে কয়েকটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।
সিদ্ধান্তগুলো হলো:
১. বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগের যেসকল বর্ষ/ সিমেস্টারের অনুষ্ঠিত পরীক্ষার ফলাফল স্থগিত রয়েছে তা দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রকাশ করার জন্য প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
২. বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সকল বিভাগের স্নাতক চতুর্থ বর্ষ অষ্টম সিমেস্টারের সমাপনী পরীক্ষা ও মাষ্টার্স দ্বিতীয় সিমেস্টারের সমাপনী পরীক্ষা গ্রহণ বাকী রয়েছে তা গ্রহণের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ থাকার সরকারি সিদ্ধান্ত রয়েছে, এরপরে যদি সরকারি ঘোষণায় একাডেমিক কার্যক্রম চালানোর অনুমতি দেওয়া হয় কেবলমাত্র তবেই স্বাস্থ্যবিধি ( আবাসিক হল না খুলে) মেনে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।
৩. ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষা গুচ্ছ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষা অনলাইনে নয় বরং সরাসরি আয়োজনের পক্ষে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছে একাডেমিক কাউন্সিল।​
সভায় কমিটির সদস্য সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. মোঃ হুমায়ূন কবীরসহ বিভিন্ন অনুষদের ডীন ও বিভাগীয় প্রধানরা অংশ গ্রহণ করেন।