ঢাকা ১০:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সড়ক গেল খালের পেটে!

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুরে ওয়াপদা খালের আকস্মিক ভাঙ্গনে সৃষ্ট জনদূর্ভোগ। প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে জকসিন থেকে ওয়াপদা অফিস সড়কের যোগাযোগ ব্যবস্থা। অথচ নেই কোন প্রতিকার! এ যেনো সড়ক খেলো ওয়াপদা খালে অবস্থা।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার লাহারকান্দী ইউনিয়নের চাঁদখালী বাজার বেইলি ব্রীজের দক্ষিণ পাড়ের মূল পটক প্রায় ওয়াপদা খালের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। জান যায়, গত (৩০ আগস্ট) হঠাৎ ওয়াপদা খালের ভাঙ্গনে তলিয়ে যায় ২ টি দোকান। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সড়ক ব্যবস্থা। ৪ চাকার কোন মালবাহী গাড়ি যাতায়াত করতে পারে না এই সড়ক দিয়ে।

লক্ষ্মীপুরের এডিসি,ইউনও,পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা, এলজিডি কর্মকর্তা ঘটনাটি পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন মুশু জানান, পানি উন্নয়ন কর্মকর্তা শুধু ৫০০ খালি জিও ব্যাগ প্রদান করে যা বালুর অভাবে ডাম্পিং করা সম্ভব হয় নাই, কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার গিয়েও কোন সুফল পাননি বলে জানান তিনি। ফলে এ সড়ক দিয়ে চলাচল করা কয়েক লাখ সাধারণ মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে।

এলাকাবাসীর দাবি অনতিবিলম্বে সড়কটি সংস্কারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে সাধারণ জনগণের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সড়ক গেল খালের পেটে!

আপডেট সময় ০২:৪৭:৪৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুরে ওয়াপদা খালের আকস্মিক ভাঙ্গনে সৃষ্ট জনদূর্ভোগ। প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে জকসিন থেকে ওয়াপদা অফিস সড়কের যোগাযোগ ব্যবস্থা। অথচ নেই কোন প্রতিকার! এ যেনো সড়ক খেলো ওয়াপদা খালে অবস্থা।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার লাহারকান্দী ইউনিয়নের চাঁদখালী বাজার বেইলি ব্রীজের দক্ষিণ পাড়ের মূল পটক প্রায় ওয়াপদা খালের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। জান যায়, গত (৩০ আগস্ট) হঠাৎ ওয়াপদা খালের ভাঙ্গনে তলিয়ে যায় ২ টি দোকান। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সড়ক ব্যবস্থা। ৪ চাকার কোন মালবাহী গাড়ি যাতায়াত করতে পারে না এই সড়ক দিয়ে।

লক্ষ্মীপুরের এডিসি,ইউনও,পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা, এলজিডি কর্মকর্তা ঘটনাটি পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন মুশু জানান, পানি উন্নয়ন কর্মকর্তা শুধু ৫০০ খালি জিও ব্যাগ প্রদান করে যা বালুর অভাবে ডাম্পিং করা সম্ভব হয় নাই, কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার গিয়েও কোন সুফল পাননি বলে জানান তিনি। ফলে এ সড়ক দিয়ে চলাচল করা কয়েক লাখ সাধারণ মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে।

এলাকাবাসীর দাবি অনতিবিলম্বে সড়কটি সংস্কারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে সাধারণ জনগণের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন।