ঢাকা ০২:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আইনি লড়াই করতে বৃটেনে ফিরতে পারবেন সাবেক আইএস বধু শামীমা!

ডেস্ক নিউজঃ  নিজের নাগরিকত্বের জন্য আইনি লড়াই করতে বৃটেনে ফিরতে পারবেন সাবেক বৃটিশ নাগরিক আইএস বধু শামীমা।

প্রায় পাঁচবছর পূর্বে আইএসের সাথে যোগ দিয়ে সিরিয়া যান বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত বৃটিশ এই তরুনী সেখানে যাবার পর এক আইএসের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে গর্ভবতী হোন এবং এক সন্তান জন্ম দেন।
গতবছর শামীমাকে সিরিয়ার একটি শরনার্থী শিবিরে পাওয়া যায়। সিরিয়ায় আইএস জঙ্গি সংঘটনের সাথে যোগ দেয়ার অপরাধে বৃটিশ সরকার তার নাগরিকত্ব বাতিল করে দেয়। যার ফলে তিনি আর বৃটেনে ফিরতে পারেননি। শামীমা সিরিয়ায় থেকেই এতদিন ধরে আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন শামীমার আইনজীবী ড্যানিয়েল ফার্নার আদালতের রায়ে বলেন তার মক্কেল কোনো সময়ই নিজের পক্ষের যথাযত বক্তব্য জানানোর সুযোগ পাননি তিনি বৃটিশ আইন কে শ্রদ্ধা করেন ভয় পান না। শামীমা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত। শামীমা শুধুমাত্র বৃটিশ নাগরিক ছিলেন আর আন্তর্জাতিক আইনে কোনো একক দেশের নাগরিকের এভাবে নাগরিকত্ব কেড়ে নিয়ে থাকে রাষ্ট্রহীন করে দেয়া মানবাধিকার পরিপন্থী তাই তার নাগরিকত্ব ফিরিয়ে দেয়ার জন্য বৃটিশ সরকারের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছেন।
গতমাসে শামীমার আইনজীবী সেদেশের এক আপিল আদালতে এই যুক্তি প্রদশর্ন করে বলেন শামীমা সিরিয়া থেকে কার্যকর ভাবে বৃটিশ সরকারের সিদ্ধান্তকে সঠিকভাবে চ্যালেন্জ করতে পারছেননা তাই তাকে বৃটেনে ফিরার সুযোগ দেয়া হোক।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

আইনি লড়াই করতে বৃটেনে ফিরতে পারবেন সাবেক আইএস বধু শামীমা!

আপডেট সময় ০৭:৩৭:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০

ডেস্ক নিউজঃ  নিজের নাগরিকত্বের জন্য আইনি লড়াই করতে বৃটেনে ফিরতে পারবেন সাবেক বৃটিশ নাগরিক আইএস বধু শামীমা।

প্রায় পাঁচবছর পূর্বে আইএসের সাথে যোগ দিয়ে সিরিয়া যান বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত বৃটিশ এই তরুনী সেখানে যাবার পর এক আইএসের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে গর্ভবতী হোন এবং এক সন্তান জন্ম দেন।
গতবছর শামীমাকে সিরিয়ার একটি শরনার্থী শিবিরে পাওয়া যায়। সিরিয়ায় আইএস জঙ্গি সংঘটনের সাথে যোগ দেয়ার অপরাধে বৃটিশ সরকার তার নাগরিকত্ব বাতিল করে দেয়। যার ফলে তিনি আর বৃটেনে ফিরতে পারেননি। শামীমা সিরিয়ায় থেকেই এতদিন ধরে আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন শামীমার আইনজীবী ড্যানিয়েল ফার্নার আদালতের রায়ে বলেন তার মক্কেল কোনো সময়ই নিজের পক্ষের যথাযত বক্তব্য জানানোর সুযোগ পাননি তিনি বৃটিশ আইন কে শ্রদ্ধা করেন ভয় পান না। শামীমা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত। শামীমা শুধুমাত্র বৃটিশ নাগরিক ছিলেন আর আন্তর্জাতিক আইনে কোনো একক দেশের নাগরিকের এভাবে নাগরিকত্ব কেড়ে নিয়ে থাকে রাষ্ট্রহীন করে দেয়া মানবাধিকার পরিপন্থী তাই তার নাগরিকত্ব ফিরিয়ে দেয়ার জন্য বৃটিশ সরকারের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছেন।
গতমাসে শামীমার আইনজীবী সেদেশের এক আপিল আদালতে এই যুক্তি প্রদশর্ন করে বলেন শামীমা সিরিয়া থেকে কার্যকর ভাবে বৃটিশ সরকারের সিদ্ধান্তকে সঠিকভাবে চ্যালেন্জ করতে পারছেননা তাই তাকে বৃটেনে ফিরার সুযোগ দেয়া হোক।