ঢাকা ১১:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সড়ক দুর্ঘটনায় নিভে গেল বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চেতনায় বিশ্বাসী এক উজ্জ্বল নক্ষত্র।

কিছু মৃত্যু মেনে নেয়া কষ্টকর, বেদনাদায়ক, যা লিখে প্রকাশ করা খুবই কঠিন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চেতনায় বিশ্বাসী নিবেদীত নির্বীক সৈনিক, জননেত্রী শেখ হাসিনার আস্তাবাজন, ইউরোপীয় আওয়ামীলীগ রাজনৈতিক পরিচিত মূখ। ফ্রান্স আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সভাপতি, ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সাধারন সস্পাদক মহসিন উদ্দীন খাঁন লিটন ভাইয়ের অকাল মৃত্যু মেনে নিতে কেউ পারছি না। তিনি ছিলেন অতি বিনয়ী, সর্বদা হাস্যজ্জল, একজন নেতা। যার জীবন যৌবন ধ্যান সবটুকুই ছিল বঙ্গবন্ধুর আদর্শ আর শেখ হাসিনার ভিষন বাস্তবায়ন নিয়ে।

লিটন ভাই আমাদের এভাবে কাঁদিয়ে চলে গেলেন না ফেরার দেশে বিশ্বাস করতে পারছিনা। কিছু দিন আগে ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সভাপতি, আমাদের সকলের শ্রদ্ধাভাজন বর্ষীয়ান নেতা, মরহুম বেনজীর আহমদ সেলিম ভাই হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন। সেই শোক কাটতে না কাটতে আজকে আমরা হারালাম আমাদের আরেক রাজনৈতিক অভিবাবকে। যা ফ্রান্স আওয়ামীলীগ তথা আওয়ামী লীগ পরিবারের জন্য অপূরনীয় ক্ষতি হল। আসলে এই ক্ষণস্থায়ী পৃথিবীতে কে কত দিন আছি আমরা কেউ যানিনা।

মহসীন উদ্দিন খান লিটন ভাই করোনা কান্তি কালে বাংলাদেশে অবস্হান করছিলেন। এই পেন্ডামিকে কত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, কারো মৃত্যুর সংবাদ শুনলে জানাজায় গিয়েছেন। সরকারের প্রচার সহ সচেতনামূলক লাইভ পোষ্ট সব সময় করতেন। আর দেখা যাবেনা লাইভে তাকে কারো শোক সংবাদ জানাতে, আজ তিনি নিজেই মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় পৃথিবী থেকে চির বিদায় নিলেন। ওপারে ভালো থাকবেন প্রিয় লিটন ভাই।

আমরা ফ্রান্স আওয়ামী যুবলীগের পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করছি এবং মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। মহান আল্লাহ’তালা মহসিন উদ্দীন খাঁন লিটন ভাইকে জান্নাতুল ফৈরদাউস নসিব করুন, এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারকে শোক সইবার ক্ষমতা দান করুন, আমিন।

মিজানুর রহমান
ফ্রান্স যুবলীগ।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সড়ক দুর্ঘটনায় নিভে গেল বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চেতনায় বিশ্বাসী এক উজ্জ্বল নক্ষত্র।

আপডেট সময় ০৭:১২:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০

কিছু মৃত্যু মেনে নেয়া কষ্টকর, বেদনাদায়ক, যা লিখে প্রকাশ করা খুবই কঠিন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চেতনায় বিশ্বাসী নিবেদীত নির্বীক সৈনিক, জননেত্রী শেখ হাসিনার আস্তাবাজন, ইউরোপীয় আওয়ামীলীগ রাজনৈতিক পরিচিত মূখ। ফ্রান্স আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সভাপতি, ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সাধারন সস্পাদক মহসিন উদ্দীন খাঁন লিটন ভাইয়ের অকাল মৃত্যু মেনে নিতে কেউ পারছি না। তিনি ছিলেন অতি বিনয়ী, সর্বদা হাস্যজ্জল, একজন নেতা। যার জীবন যৌবন ধ্যান সবটুকুই ছিল বঙ্গবন্ধুর আদর্শ আর শেখ হাসিনার ভিষন বাস্তবায়ন নিয়ে।

লিটন ভাই আমাদের এভাবে কাঁদিয়ে চলে গেলেন না ফেরার দেশে বিশ্বাস করতে পারছিনা। কিছু দিন আগে ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সভাপতি, আমাদের সকলের শ্রদ্ধাভাজন বর্ষীয়ান নেতা, মরহুম বেনজীর আহমদ সেলিম ভাই হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন। সেই শোক কাটতে না কাটতে আজকে আমরা হারালাম আমাদের আরেক রাজনৈতিক অভিবাবকে। যা ফ্রান্স আওয়ামীলীগ তথা আওয়ামী লীগ পরিবারের জন্য অপূরনীয় ক্ষতি হল। আসলে এই ক্ষণস্থায়ী পৃথিবীতে কে কত দিন আছি আমরা কেউ যানিনা।

মহসীন উদ্দিন খান লিটন ভাই করোনা কান্তি কালে বাংলাদেশে অবস্হান করছিলেন। এই পেন্ডামিকে কত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, কারো মৃত্যুর সংবাদ শুনলে জানাজায় গিয়েছেন। সরকারের প্রচার সহ সচেতনামূলক লাইভ পোষ্ট সব সময় করতেন। আর দেখা যাবেনা লাইভে তাকে কারো শোক সংবাদ জানাতে, আজ তিনি নিজেই মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় পৃথিবী থেকে চির বিদায় নিলেন। ওপারে ভালো থাকবেন প্রিয় লিটন ভাই।

আমরা ফ্রান্স আওয়ামী যুবলীগের পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করছি এবং মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। মহান আল্লাহ’তালা মহসিন উদ্দীন খাঁন লিটন ভাইকে জান্নাতুল ফৈরদাউস নসিব করুন, এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারকে শোক সইবার ক্ষমতা দান করুন, আমিন।

মিজানুর রহমান
ফ্রান্স যুবলীগ।