ঢাকা ১২:২২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হামলা ও লুটপাটের মামলায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেফতার।

আবীর আকাশ লক্ষীপুর থেকেঃ
লক্ষ্মীপুরে হামলা ও লুটপাটের মামলায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব ইমতিয়াজকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।​ রোববার (৫ জুলাই) বিকেলে সদর উপজেলার নন্দনপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।​
গত বছরের অক্টোবর মাসে নিজ আত্মীয় চাচী শিমু আক্তারের দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।​ মামলায় ১০জনকে আসামী করা হয়।
জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব ইমতিয়াজ লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের লিল্লাহ মসজিদ সংলগ্ন ক্বারী বাড়ীর বাসিন্দা।​ মামলার বাদী চাচী শিমু আক্তার একই বাড়ীর প্রতিবেশী।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে চাচা জামাল হোসেনের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইমতিয়াজদের।​ ঘটনার দিন ইমতিয়াজ আসামীদের নিয়ে জোরপূর্বক চাচার বসতঘরে হামলা চালায়।​ ভাঙচুর করেন বাড়ির টিনসেড ঘর ও সীমানা প্রাচীর।​ এসময় লুট করে নিয়ে যান ২০ হাজার টাকা মূল্যের মোবাইল সেট, ৯ লক্ষ ৫২ হাজার টাকা মূল্যের ভিসা,পাসপোর্ট, টিকেটসহ, আকামা ও ৫ লাখ টাকার স্বর্ণসহ প্রায় ১১ লাখ ২ হাজার টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যান।
একপর্যায়ে বাঁধা দিলে ইমতিয়াজসহ অন্যরা চাচী শিমু আক্তার (মামলার বাদী) শ্লীলতাহানী করেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।​ পরে চাচীর শোর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ইমতিয়াজসহ আসামীরা।
এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুর মডেল থানার ওসি-তদন্ত মোসলেহ উদ্দিন জানান, মামলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইমতিয়াজকে গ্রেফতার করা হয়েছে।​ পরে বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।​ এ মামলায় অন্য আসামীদেরও দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানান তিনি।
ট্যাগস

হামলা ও লুটপাটের মামলায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা গ্রেফতার।

আপডেট সময় ০২:০৫:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ জুলাই ২০২০
আবীর আকাশ লক্ষীপুর থেকেঃ
লক্ষ্মীপুরে হামলা ও লুটপাটের মামলায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব ইমতিয়াজকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।​ রোববার (৫ জুলাই) বিকেলে সদর উপজেলার নন্দনপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।​
গত বছরের অক্টোবর মাসে নিজ আত্মীয় চাচী শিমু আক্তারের দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।​ মামলায় ১০জনকে আসামী করা হয়।
জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব ইমতিয়াজ লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের লিল্লাহ মসজিদ সংলগ্ন ক্বারী বাড়ীর বাসিন্দা।​ মামলার বাদী চাচী শিমু আক্তার একই বাড়ীর প্রতিবেশী।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে চাচা জামাল হোসেনের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইমতিয়াজদের।​ ঘটনার দিন ইমতিয়াজ আসামীদের নিয়ে জোরপূর্বক চাচার বসতঘরে হামলা চালায়।​ ভাঙচুর করেন বাড়ির টিনসেড ঘর ও সীমানা প্রাচীর।​ এসময় লুট করে নিয়ে যান ২০ হাজার টাকা মূল্যের মোবাইল সেট, ৯ লক্ষ ৫২ হাজার টাকা মূল্যের ভিসা,পাসপোর্ট, টিকেটসহ, আকামা ও ৫ লাখ টাকার স্বর্ণসহ প্রায় ১১ লাখ ২ হাজার টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যান।
একপর্যায়ে বাঁধা দিলে ইমতিয়াজসহ অন্যরা চাচী শিমু আক্তার (মামলার বাদী) শ্লীলতাহানী করেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।​ পরে চাচীর শোর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ইমতিয়াজসহ আসামীরা।
এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুর মডেল থানার ওসি-তদন্ত মোসলেহ উদ্দিন জানান, মামলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইমতিয়াজকে গ্রেফতার করা হয়েছে।​ পরে বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।​ এ মামলায় অন্য আসামীদেরও দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানান তিনি।