ঢাকা ১২:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আজ থেকে বৃটেনের মসজিদ রেষ্টুরেন্ট সহ সবকিছু খুলে দেয়া হয়েছে।

নিউজ ডেস্কঃ  আজ থেকে বৃটেনের মসজিদ পাব রেষ্টুরেন্ট সহ সবকিছু খুলে দেয়া হয়েছে।
তবে সবাইকে সরকারের স্বাস্থবিধি মেনে এগুলো পরিচালনা করার জন্য আহবান করেছে সরকার। সমাজিক দূরত্ব পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা এবং প্রবেশ ও বাহিরের প্রতি বিশেষ নজর দিতে হবে।
বিশেষ করে মসজিদ গুলোতে মুসল্লী দের এ বিষয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে।
মসজিদ গুলো সকল ধর্মপ্রান মুসল্লী দের নামাজে আসতে তাদের প্রত্যেকের নিজেদের জায়নামাজ(প্রেয়ার ম্যাট) সাথে নিয়ে আসতে অনুরোধ করেছে। সবাই নিজেদের বাসা থেকে অজু করে মসজিদে প্রবেশ করতে হবে। নিজেদের জুতা রাখার জন্য ব্যাগ ব্যবহার করতে হবে। মসজিদের একদিকে প্রবেশ করে অন্যদিকে বের হতে হবে ।ফরজ নামাজ শেষে হলেই দ্রুত মসজিদ ত্যাগ করে সুন্নত নামাজ বাসায় গিয়ে পড়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। মসজিদে প্রবেশের সময় হেন্ড সেনিটাইজার বা হাত পরিষ্কার করে নিতে হবে। তবে অযথা কোনো কিছু স্পর্শ না করার অনুরোধ করা হয়েছে। ১২ বছর এর কম এবং সত্তুর এর উপরের বয়সী দের মসজিদে না আসার জন্য নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। মসজিদ গুলোতে মুসল্লী দের প্রতিদিনের উপস্থিতি দের নাম লিপিবদ্ধ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। জ্বর সর্দি নিয়ে মসজিদে না আসার জন্য বলা হয়েছে। মসজিদের আকার অনুযায়ী ৩০ জনের বেশি মুসল্লী না ডুকতে বলা হয়েছে।

সরকার থেকে বলা হয়েছে প্রানঘাতী এই করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা টেকাতে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

ইতিমধ্যে ইংল্যান্ডের বেশ কয়েকটি শহরে ভাইরাসের আক্রমন আরে তীব্র হচ্ছে এমতাবস্থায় দেশকে উন্মুক্ত করে দেয়া নিয়ে অনেক বিশেষজ্ঞরাই নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন।

উল্লেখ্য বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা রুখতে বিগত মার্চ মাসের শেষ দিক থেকে যুক্তরাজকে লকডাউন এর আওতায় নিয়ে আসা হয় এবং দীর্ঘ প্রায় তিন মাসের ও বেশি সময় পর শর্তসাপেক্ষে আবারও সবকিছু উন্মুক্ত করা হয়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

আজ থেকে বৃটেনের মসজিদ রেষ্টুরেন্ট সহ সবকিছু খুলে দেয়া হয়েছে।

আপডেট সময় ০৪:৩৮:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ  আজ থেকে বৃটেনের মসজিদ পাব রেষ্টুরেন্ট সহ সবকিছু খুলে দেয়া হয়েছে।
তবে সবাইকে সরকারের স্বাস্থবিধি মেনে এগুলো পরিচালনা করার জন্য আহবান করেছে সরকার। সমাজিক দূরত্ব পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা এবং প্রবেশ ও বাহিরের প্রতি বিশেষ নজর দিতে হবে।
বিশেষ করে মসজিদ গুলোতে মুসল্লী দের এ বিষয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে।
মসজিদ গুলো সকল ধর্মপ্রান মুসল্লী দের নামাজে আসতে তাদের প্রত্যেকের নিজেদের জায়নামাজ(প্রেয়ার ম্যাট) সাথে নিয়ে আসতে অনুরোধ করেছে। সবাই নিজেদের বাসা থেকে অজু করে মসজিদে প্রবেশ করতে হবে। নিজেদের জুতা রাখার জন্য ব্যাগ ব্যবহার করতে হবে। মসজিদের একদিকে প্রবেশ করে অন্যদিকে বের হতে হবে ।ফরজ নামাজ শেষে হলেই দ্রুত মসজিদ ত্যাগ করে সুন্নত নামাজ বাসায় গিয়ে পড়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। মসজিদে প্রবেশের সময় হেন্ড সেনিটাইজার বা হাত পরিষ্কার করে নিতে হবে। তবে অযথা কোনো কিছু স্পর্শ না করার অনুরোধ করা হয়েছে। ১২ বছর এর কম এবং সত্তুর এর উপরের বয়সী দের মসজিদে না আসার জন্য নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। মসজিদ গুলোতে মুসল্লী দের প্রতিদিনের উপস্থিতি দের নাম লিপিবদ্ধ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। জ্বর সর্দি নিয়ে মসজিদে না আসার জন্য বলা হয়েছে। মসজিদের আকার অনুযায়ী ৩০ জনের বেশি মুসল্লী না ডুকতে বলা হয়েছে।

সরকার থেকে বলা হয়েছে প্রানঘাতী এই করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা টেকাতে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

ইতিমধ্যে ইংল্যান্ডের বেশ কয়েকটি শহরে ভাইরাসের আক্রমন আরে তীব্র হচ্ছে এমতাবস্থায় দেশকে উন্মুক্ত করে দেয়া নিয়ে অনেক বিশেষজ্ঞরাই নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন।

উল্লেখ্য বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা রুখতে বিগত মার্চ মাসের শেষ দিক থেকে যুক্তরাজকে লকডাউন এর আওতায় নিয়ে আসা হয় এবং দীর্ঘ প্রায় তিন মাসের ও বেশি সময় পর শর্তসাপেক্ষে আবারও সবকিছু উন্মুক্ত করা হয়েছে।