ঢাকা ০১:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য প্যাক

বিভিন্ন প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি প্যাক ব্রণ নিরাময় করতে সাহায্য করে।

রূপচর্চা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ব্রণ প্রবণ ত্বকের উপযোগী কয়েকটি মাস্ক সম্পর্কে জানানো হল।

হলুদ ও মধুর প্যাক

হলুদে থাকা প্রদাহনাশক উপাদান কেবল ত্বকের ব্রণই দূর করেনা পাশাপাশি উজ্জ্বলতা

ব্যবহার পদ্ধতি: হলুদ ও মধু একসঙ্গে মিশিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। প্যাকটি ত্বক মেখে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে ফেলুন।

পরামর্শ: এক চামচ দই এই প্যাকে যোগ করতে পারেন। এতে ত্বকের ব্রণ সৃষ্টিকারী মৃত কোষ দূর হবে।

অ্যালো ভেরার ফেইস প্যাক

ব্রণের কারণে ত্বকে জ্বলুনি ও প্রদাহ দেখা দেয়। অ্যালো ভেরা ত্বক ঠাণ্ডা রাখে এবং তাৎক্ষনিকভাবে ত্বকে আরাম অনুভূত হয়। এছাড়াও অ্যালো ভেরা স্বাস্থ্যসম্মত যা নিয়মিত খাওয়া হলে ব্রণ ও ব্রেক আউট নিয়ন্ত্রণ করে।

ব্যবহার পদ্ধতি: তাজা অ্যালোভেরা কেটে আক্রান্ত স্থানে লাগান। ১০ মিনিট পরে তা কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পরামর্শ: রাতে ঘুমানোর আগে ব্রণের ওপর অ্যালো ভেরা মেখে ঘুমান। সকালে উঠে ভালো ফলাফল পাবেন।

হলুদ ও নিমের প্যাক

প্রাচীনকাল থেকেই ত্বকের সমস্যায় নিম ও হলুদ ব্যবহার করা হচ্ছে। এর ফাঙ্গাল ও ব্যাক্টেরিয়া বিরোধী গুণাগুণ ত্বকের ব্রণ ও দাগ কমাতে সহায়তা করে।

ব্যবহার পদ্ধতি: এক টেবিল চামচ নিম পাতা বেটে নিন। এতে আধা চা-চামচ হলুদের গুঁড়া যোগ করুন। মসৃণ পেস্ট তৈরি করে তা মুখে মেখে ১০ মিনিট রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পরামর্শ: হলুদ খুব বেশি সময় ত্বকে রাখলে ত্বকে হলুদের দাগ বসে যায় তাই কম সময় ত্বকে ব্যবহার করতে হবে।

টি ট্রি তেল ও ডিমের সাদা অংশের প্যাক

টি ট্রি তেল ব্যাক্টেরিয়ারোধী উপাদান সমৃদ্ধ এবং ব্রন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। ডিমের সাদা অংশ প্রাকৃতিক কন্ডিশনার সমৃদ্ধ, ডিমের সাদা অংশ ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বাড়াতে সাহায্য করে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য প্যাক

আপডেট সময় ০৪:২৮:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুন ২০২০

বিভিন্ন প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি প্যাক ব্রণ নিরাময় করতে সাহায্য করে।

রূপচর্চা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ব্রণ প্রবণ ত্বকের উপযোগী কয়েকটি মাস্ক সম্পর্কে জানানো হল।

হলুদ ও মধুর প্যাক

হলুদে থাকা প্রদাহনাশক উপাদান কেবল ত্বকের ব্রণই দূর করেনা পাশাপাশি উজ্জ্বলতা

ব্যবহার পদ্ধতি: হলুদ ও মধু একসঙ্গে মিশিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। প্যাকটি ত্বক মেখে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে ফেলুন।

পরামর্শ: এক চামচ দই এই প্যাকে যোগ করতে পারেন। এতে ত্বকের ব্রণ সৃষ্টিকারী মৃত কোষ দূর হবে।

অ্যালো ভেরার ফেইস প্যাক

ব্রণের কারণে ত্বকে জ্বলুনি ও প্রদাহ দেখা দেয়। অ্যালো ভেরা ত্বক ঠাণ্ডা রাখে এবং তাৎক্ষনিকভাবে ত্বকে আরাম অনুভূত হয়। এছাড়াও অ্যালো ভেরা স্বাস্থ্যসম্মত যা নিয়মিত খাওয়া হলে ব্রণ ও ব্রেক আউট নিয়ন্ত্রণ করে।

ব্যবহার পদ্ধতি: তাজা অ্যালোভেরা কেটে আক্রান্ত স্থানে লাগান। ১০ মিনিট পরে তা কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পরামর্শ: রাতে ঘুমানোর আগে ব্রণের ওপর অ্যালো ভেরা মেখে ঘুমান। সকালে উঠে ভালো ফলাফল পাবেন।

হলুদ ও নিমের প্যাক

প্রাচীনকাল থেকেই ত্বকের সমস্যায় নিম ও হলুদ ব্যবহার করা হচ্ছে। এর ফাঙ্গাল ও ব্যাক্টেরিয়া বিরোধী গুণাগুণ ত্বকের ব্রণ ও দাগ কমাতে সহায়তা করে।

ব্যবহার পদ্ধতি: এক টেবিল চামচ নিম পাতা বেটে নিন। এতে আধা চা-চামচ হলুদের গুঁড়া যোগ করুন। মসৃণ পেস্ট তৈরি করে তা মুখে মেখে ১০ মিনিট রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পরামর্শ: হলুদ খুব বেশি সময় ত্বকে রাখলে ত্বকে হলুদের দাগ বসে যায় তাই কম সময় ত্বকে ব্যবহার করতে হবে।

টি ট্রি তেল ও ডিমের সাদা অংশের প্যাক

টি ট্রি তেল ব্যাক্টেরিয়ারোধী উপাদান সমৃদ্ধ এবং ব্রন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। ডিমের সাদা অংশ প্রাকৃতিক কন্ডিশনার সমৃদ্ধ, ডিমের সাদা অংশ ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বাড়াতে সাহায্য করে।